যাচাইকৃত ১১শ রোহিঙ্গা নিয়ে প্রত্যাবাসন শুরু

চট্টগ্রাম জাতীয় শীর্ষ

বাংলাদেশের দেওয়া ৮ হাজার ৩২ জন রোহিঙ্গার তালিকা থেকে যাচাই-বাছাইকৃত মাত্র ১ হাজার ১০১ জনকে দিয়ে প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া শুরু করতে চাইছে মিয়ানমার। এছাড়া আগের ধাপে যাচাইকৃত ৭৭৮ জন মুসলিম ও ৪৪৪ জন হিন্দু রোহিঙ্গাকেও ফেরত নেওয়ার আগ্রহ দেখিয়েছে দেশটি। বৃহস্পতিবার ঢাকায় রোহিঙ্গাদের ফেরাতে গঠিত জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপের (জেডব্লিউজি) দ্বিতীয় বৈঠকের পর মিয়ানমারের পক্ষ থেকে এই অবস্থান ব্যক্ত করা হয়েছে। মিয়ানমারে গণমাধ্যমের খবরে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
বৈঠকে দুই দেশ প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া নিয়ে মত বিনিময় করেছে। বাংলাদেশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া ধীরগতিতে চালাচ্ছে। বাংলাদেশ চায় মিয়ানমার সরকার যেন রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের নিরাপত্তা ও সুরক্ষাসহ ‘অনুকূল পরিবেশ’ তৈরি করে।

অন্যদিকে প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া শুরুর জন্য বাংলাদেশকে প্রয়োজনীয় তথ্য সরবরাহের আহ্বান জানিয়েছে মিয়ানমার। এছাড়া বাংলাদেশের ট্রানজিট ক্যাম্পের সমাপ্তি, উভয় দেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক চুক্তি সম্পর্কে রোহিঙ্গাদের মাঝে সচেতনতার প্রচার, যাচাই ফরম দেওয়া প্রভৃতি কাজ করতে বাংলাদেশের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে। জেডব্লিউজি এর বৈঠকে রোহিঙ্গাদের নিরাপদ, মর্যাদাপূর্ণ ও টেকসই প্রত্যাবাসনের বিষয়ে আলোচনা হয়। বৈঠকে উভয় পক্ষ ন্যাশনাল ভ্যারিফিকেশন কার্ড (এনভিসি) ইস্যুতে বিস্তারিত আলোচনা করে। সূত্র জানায়, মিয়ানমারে ফিরে যাওয়ার পর রোহিঙ্গাদের দ্রুত এনভিসি কার্ড দেওয়া হবে, যার মাধ্যমে রাখাইন রাজ্যে তারা চাকরি করতে পারবে এবং নাগরিকত্ব পাবে। জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপের বৈঠক মিয়ানমারের নেপিদো’তে অনুষ্ঠিত হবে। কূটনৈতিক চ্যানেলে সময়সূচি নির্ধারিত হবে।

-ফেসবুক কমেন্টস-

মন্তব্য