ব্যাপক নিরাপত্তার মধ্যে দিয়ে খুলনায় ভোট গ্রহণ চলছে

খুলনা রাজনীতি শীর্ষ

আজ মঙ্গলবার সকাল ৮টা থেকে ব্যাপক নিরাপত্তার মধ্যে খুলনা সিটি করপোরেশনের ২৮৯টি ভোট কেন্দ্রে ভোট শুরু হয়েছে। নির্বাচন কমিশনের কর্মকর্তারা এ তথ্য জানিয়ে বলেন, খুলনার ৪ লাখ ৯৩ হাজার ভোটার রয়েছে। নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য কমিশন সর্বোচ্চ প্রস্ততি নিয়েছে; সবার কাছে গ্রহণযোগ্য ভোট করতে চাই আমরা।

মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় পাঁচজন: মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন— আওয়ামী লীগ মনোনীত তালুকদার আব্দুল খালেক (নৌকা), বিএনপি মনোনীত নজরুল ইসলাম মঞ্জু (ধানের শীষ), জাতীয় পার্টি (জাপা) মনোনীত এসএম শফিকুর রহমান মুশফিক (লাঙ্গল), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনোনীত মাওলানা মুজ্জাম্মিল হক (হাতপাখা) ও সিপিবি মনোনীত মোঃ মিজানুর রহমান বাবু (কাস্তে)। এর পাশাপাশি ৩১টি সাধারণ ওয়ার্ডে ১৪৮ জন কাউন্সিলর প্রার্থী এবং ১০টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ৩৯ জন নারী কাউন্সিলর প্রার্থীসহ ১৮৭ জন কাউন্সিলর প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। মেয়র প্রার্থীদের মধ্যে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী তালুকদার আব্দুল খালেক সকাল ৮টায় নগরীর সাউথ সেন্ট্রাল রোডের পাইওনিয়ার উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ে এবং বিএনপির নজরুল ইসলাম মঞ্জু সকাল সাড়ে ৮টায় মিয়াপাড়া মেইন রোডের রহিমা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট প্রদান করবেন

ইসি সূত্র জানায়, খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোটার চার লাখ ৯৩ হাজার ৯৩ জন। খুলনা সিটি নির্বাচনে ২৮৯টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ (ঝুঁকিপূর্ণ) কেন্দ্র রয়েছে ২৩৪টি। আর ৫৫টি সাধারণ কেন্দ্র হিসাবে চিহ্নিত করেছে পুলিশ। প্রতিটি সাধারণ কেন্দ্রে ২২ জন এবং ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রে ২৪ জন করে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়ন করা হয়েছে। এবার ভোট কক্ষ রয়েছে এক হাজার ৫৬১টি। এ ছাড়া অস্থায়ী ভোট কক্ষ রয়েছে ৫৫টি। এ সব ভোট কেন্দ্রে চার হাজার ৯৭২ জন প্রিজাইডিং অফিসার, সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার ও পোলিং অফিসার দায়িত্ব পালন করবেন। নির্বাচনে দুটি কেন্দ্রে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) সাহায্যে ভোট গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন। এ দুটি ভোট কেন্দ্র হচ্ছে কেসিসির ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের সোনাপোতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং ২৭ নম্বর ওয়ার্ডের পিটিআই কেন্দ্র।

-ফেসবুক কমেন্টস-

মন্তব্য