‘আমাকে ঘরের মধ্যে জোর করে ঢুকিয়ে ধর্ষণ করে শামির দাদা!’

'আমায় ঘরের মধ্যে জোর করে ঢুকিয়ে ধর্ষণ করে শামির দাদা!'
এশিয়া খেলাধুলা

‘আমায় ঘরের মধ্যে জোর করে ঢুকিয়ে ধর্ষণ করে শামির দাদা!’ ভারতীয় পেসার মহম্মদ শামির মামলায় গোপন জবানবন্দি নেওয়ার দিন ধার্য করল আদালত৷ আগামী ১৯ মার্চ আলিপুর আদালতে শামির বিরুদ্ধে গোপন জবানবন্দি দেবেন তাঁর স্ত্রী হাসিন জাহান৷ প্রসঙ্গত, ক্রিকেটার মহম্মদ শামির বিরুদ্ধে বধূনির্যাতন, ধর্ষণ, মারধর-সহ একাধিক অভিযোগ করেছেন হাসিন৷ সেই মামলার তদন্তের গতি বাড়াতেই হাসিনের গোপন জবানবন্দি নিতে চায় পুলিশ৷

ইতিমধ্যেই এই মামলায় হাসিনকে কয়েকদফা জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিশ৷ তাঁর জবানবন্দি ভিডিও রেকর্ড করা হয়েছে৷ পুলিশ সূত্রে খবর, যেহেতু এক্ষেত্রে ক্রিকেটারের স্ত্রী অভিযোগ করেছেন, উত্তরপ্রদেশের শ্বশুরবাড়িতে তাঁকে একটি ঘরের মধ্যে জোর করে ঢুকিয়ে দেয় শামি৷ সেই ঘরে তাঁকে ধর্ষণ করেছে শামির দাদা মহম্মদ হাসিব আহমেদ৷ এক্ষেত্রে একাধিক ব্যক্তির যুক্ত থাকার অভিযোগ উঠছে৷ তাই ধর্ষণের বদলে গণধর্ষণের ধারা প্রয়োগ হবে কিনা তা নিয়ে ভাবনাচিন্তা করছে লালবাজার৷

সেজন্যই আগে সামির স্ত্রীয়ের গোপন জবানবন্দি নেওয়া হবে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে৷ সেই জবানবন্দির ভিত্তিতে আদালত যদি এই মামলায় গণধর্ষণের ধারা প্রয়োগ করতে বলে তাহলে এই মামলায় শামি ও তাঁর দাদার বিরুদ্ধে গণধর্ষণের ধারাও (৩৭৬ডি) রুজু করা হতে পারে৷

ইতিমধ্যেই যে মোবাইলের মাধ্যমে শামি মহিলাদের সঙ্গে চ্যাট করতেন বলে অভিযোগ, সেই মোবাইালটিও বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে৷ মোবাইলটি ফরেন্সিক পরীক্ষায় পাঠানোর প্রস্তুতিও শুরু হয়েছে৷ পাশাপাশি শামির চ্যাটবক্সও ঘেঁটে দেখা শুরু করেছেন লালবাজারের গোয়েন্দারা৷

-ফেসবুক কমেন্টস-

মন্তব্য